Skip to content

ঢাকা থিয়েটার প্রতিষ্ঠার ৪৮ বছর

বাংলাদেশের অগ্রগণ্য নাটকের দল ঢাকা থিয়েটার প্রতিষ্ঠার ৪৮ বছর পূর্ণ করতে যাচ্ছে বৃহস্পতিবার। ১৯৭৩ সালে গঠিত হয় দলটি। ঢাকা থিয়েটারের দল প্রধান নাসির উদ্দীন ইউসুফ মঙ্গলবার ফেইসবুকে এ বিষয়ে একটি পোস্ট দেন।

সেখানে বলেন, “প্রয়াত নাট্যাচার্য সেলিম আল দীনের নেতৃত্বে ঔপনিবেশিকমুক্ত বাংলা ও বাঙালির নাট্যরীতি ও আঙ্গিকের উদগাতা এইদল। বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার সৃষ্টির মধ্য দিয়ে এই দল আমাদের নাট্যান্দোলনে একটি বিপ্লবী পরিবর্তন ঘটিয়েছে।”

শুরুতে বলেন, “আমি কোন অবস্থাতেই এ কথা ভাবতে পারছি না যে আমার জীবনের ৪ যুগ কেটে গেছে আমাদের প্রাণপ্রিয় নাট্যদল ঢাকা থিয়েটারের সাথে এবং এখনো বেঁচে আছি।”

“যারা প্রতিষ্ঠাকাল থেকে এ দলের সাথে আছে, যারা জীবনের নানা দাবির মুখে প্রিয় দল ছেড়ে গেছে, কিছুকাল দল করেছে, যারা নিকট অতীতে দলে যোগ দিয়েছে তাদের সবাইকে শুভেচ্ছা অভিনন্দন। তোমাদের সকলের মিলিত পরিশ্রমে আজ ঢাকা থিয়েটার স্বমহিমায় বাংলা নাট্যমঞ্চের এক অপ্রতিরোধ্য নাম।”

সাম্প্রতিক উদ্যোগ নিয়ে বলেন, “বৃটিশ কাউন্সিলের সহায়তায় ‘বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন মানুষ’র জন্য ‘সুন্দরম’ প্রকল্পের মাধ্যমে অবহেলিত এই জনগোষ্ঠীকে মূলধারায় সংযুক্ত করার এক মানবিক উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা থিয়েটার।”

জাতীয় অগ্রগতি নিয়ে নাসিরউদ্দিন বলেন, “মুক্তিযুদ্ধোত্তর বাঙালির স্বপ্নের সিকিভাগও আমরা অর্জন করিনি। যেতে হবে বহুদূর। সে যাত্রা হয়তো নতুনের হাত ধরেই এগিয়ে যাবে।”

সবশেষে সহকর্মী, দর্শক, সমালোচক, সাংবাদিক ও সহানুভূতিশীলদের শুভেচ্ছা ও কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

১৯৭৩ সালের ২৯ জুলাই যুদ্ধ ফেরত কয়েকজন তরুণ প্রতিষ্ঠা করেন ঢাকা থিয়েটার। যাদের মধ্যে অন্যতম নাসির উদ্দীন ইউসুফ।

ওই বছর নভেম্বরে ‘সংবাদ কার্টুন’ মঞ্চ নাটক নিয়ে প্রথম দর্শকদের সামনে এসেছিল ঢাকা থিয়েটার। ঢাকা জেলা ক্রীড়া সমিতি মিলনায়তনে সেই নাটকের টিকিটের দাম ছিল দুই টাকা। সেলিম আল দীনের রচনা ও নাসির উদ্দীন ইউসুফের নির্দেশনায় নাটকটি বেশ জনপ্রিয়তা পায়।

‘সংবাদ কার্টুন’ ছাড়াও একই সময়ে মঞ্চে এনেছিল ‘সম্রাট ও প্রতিদ্বন্দ্বীগণ’ নামের আরেকটি নাটক। নির্দেশনা দিয়েছিলেন হাবিবুল হাসান।

ঢাকা থিয়েটার মঞ্চ ও পথনাটক মিলিয়ে ৪০টির মতো প্রযোজনা মঞ্চায়ন করেছে।

মুনতাসির ফ্যান্টাসি, ধূর্ত ওই, কেরামত মঙ্গল, কিত্তনখোলা, ত্রিরত্ন, শকুন্তলা, হাতহদাই, যৈবতী কন্যার মন, চাকা, বনপাংশুল, বিনোদিনী, প্রাচ্য, মার্চেন্ট অব ভেনিস, একাত্তরের পালা, দ্য টেম্পেস্ট, নিমজ্জন ঢাকা থিয়েটারের দর্শক নন্দিত নাটকগুলোর মধ্যে অন্যতম।

ঢাকা থিয়েটারের তত্ত্বাবধানে ১৯৮২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার। গ্রাম থিয়েটার এ দেশের মঞ্চ নাটকে বড় ভূমিকা রেখেছে।

আফজাল হোসেন, হুমায়ুন ফরীদি, সুবর্ণা মুস্তাফা, রাইসুল ইসলাম আসাদ, জহির উদ্দিন পিয়ার, শহীদুজ্জামান সেলিম, শমী কায়সার প্রমুখ তারকাশিল্পীরা এক সময় ঢাকা থিয়েটারে নিয়মিত অভিনয় করেছেন।

২৭ জুলাই, ২০২১- ‘দৈনিক দেশ রূপান্তর’ পত্রিকায় ঢাকা থিয়েটারকে নিয়ে প্রকাশিত সংবাদটি পাঠকদের জন্য গ্রাম থিয়েটার ওয়েব পোর্টালে পুণঃপ্রকাশ করা হলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.