Skip to content

নাট্যাচার্য সেলিম আল দীনের ৭৩তম জন্মজয়ন্তী পালন করলো গ্রাম থিয়েটার সিলেট বিভাগ

ঔপনিবেশিক সাহিত্য ধারার বিপরীতে দাঁড়িয়ে বাংলা নাটককে আবহমান বাংলার গতিধারায় ফিরিয়ে এনেছিলেন নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন।
বাংলা নাটকে বিষয়, আঙ্গিক আর ভাষা নিয়ে গবেষণা ও নাটকে তার প্রতিফলন তুলে ধরেন তিনি। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বাংলা নাটকের যে আন্দোলন, তার পেছনেও রয়েছে সেলিম আল দীনের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। তিনি প্রাচীন ও মধ্যযুগীয় বাংলা সাহিত্যের শেকড়ের সন্ধানে মগ্ন ছিলেন।
রবীন্দ্র পরবর্তী যুগের সবচেয়ে শক্তিশালী এই নাট্যব্যক্তিত্বের জন্মজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার নগরের সার্কিট হাউজ সংলগ্ন সম্মিলিত নাট্য পরিষদের মহড়া কক্ষে জন্মজয়ন্তীর এ অনুষ্ঠান আয়োজন করে বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার সিলেট বিভাগ।
গ্রাম থিয়েটার সিলেট এম এ জি ওসমানী অঞ্চল এর সহযোগিতায় আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য মোকাদ্দেস বাবুল।

বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার সিলেট বিভাগের সমন্বয়ক রজত কান্তি গুপ্তের সভাপতিত্বে ও সিলেট এম এ জি ওসমানী অঞ্চলের সমন্বয়ক সৈয়দ সাইমূম আনজুম ইভানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক (খুলনা অঞ্চল) মাজহারুল হক লিপু।

অনুষ্ঠানে নাট্যাচার্যের জীবনী পাঠ করেন আবুল হাসনাত স্বপন, আবৃত্তি পরিবেশন করেন মৃত্তিকায় মহাকালের সদস্য দীপালি রানী দাস, লোক গান পরিবেশন করেন মৃত্তিকায় মহাকালের সদস্য সুবিনয় সরকার এছাড়াও আবৃত্তি ও সংগীত পরিবেশন করেন কন্ঠবীথি আবৃত্তি সংগঠন মাগুরার সদস্য রাশেদুল ইসলাম, শায়েখ উদ্দীন সোহান, মিতুল দাশ, ও অমৃতা বিশ্বাস রিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published.