সিন চাঁন্দু ঝাক্ ঝাক্ সিরমা দিসম

আলকাপ রঙ্গরস গ্রাম থিয়েটার:
রাজশাহী ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১। ভাদ্রের উত্তাপের মাঝে এক অনন্য সুন্দর দিন কাটালো বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার ও তানোর থানার চান্দুরিয়া ইনিয়নের রাতৈল আদিবাসী পাড়ার আদিবাসী – বাঙালিরা। আজ সকাল ১০টা থেকে রাজশাহী থিয়েটার ও আলকাপ রঙ্গরস গ্রাম থিয়েটারের যৌথ উদ্যোগে “বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার সেবা কেন্দ্র” রাতৈলে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা, ঔষধ, হ্যান্ডসেনিটাইজার, সাবান ও মাস্ক বিতরণ করে। প্রায় দেড়শতাধিক নারী-পুরুষ আদিবাসীদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করেন ডাঃ এফ এম এ জাহিদ।

এরপর রাতৈল তিনমাথার মোড়ে আলকাপ রঙ্গরস গ্রাম থিয়েটার এর ঐতিহ্যবাহী লোকপালা আলকাপ ও স্থানীয় আদিবাসীদের সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় দর্শক উদ্বেলিত হয়। এই পর্বে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন নিতাই কুমার সরকার। প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক তৌফিক হাসান ময়না, মূখ্য আলোচক ছিলেন সভাপতিমন্ডলীর সদস্য কাজী সাঈদ হোসেন দুলাল, বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের আন্তর্জাতিক সনম্পাদক আব্দুল হান্নান, ডাঃ এফ এম এ জাহিদ, আদিবাসী নেতা গাব্রিয়েল হাসদা, চলচ্চিত্র নির্মাতা নাট্যকার আহসান কবীর লিটন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের যুগ্ম সম্পাদক কামারউল্লা সরকার।

“সিন চান্দু ঝাক্ ঝাক্ সিরমা দিসম্
দাতে উডুডুগু বিলোন টেন্ডি”
অর্থাৎ “সকালে আকাশের দেশে আলোকিত সূর্য
পানিতে থই থই পথঘাট”

এমন মনোজ্ঞ সঙ্গীত আর প্রস্ফুটিত রক্তিম জবা ফুল দিয়ে বরণ করে নেয় আদিবাসী তরুণীরা। তারপর পরপর তিনখানা আদিবাসী তরুণীদের মনোজ্ঞ নৃত্য এবং সব শেষে করোনাকালীন লোক শিল্পীদের অসহায়ত্ব তুলে ধরা হয় হাস্যরসাত্বক চটুল আলকাপের মাধ্যমে। প্রায় দেড় বছর করোনার নানা বিধিনিষেধের মধ্যে মানুষের প্রাত্যহিক এই সংস্কৃতি চর্চা বন্ধ থাকার পর নাগরিক জীবনে এ আয়োজন এক বাড়তি আনন্দ যুগিয়েছে তা অনায়াসে বলা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *