Skip to content

স্বপ্নের গ্রাম থিয়েটার

ফরিদ আহমেদ

আজ থেকে প্রায় চল্লিশ বছর আগে মানিকগঞ্জের তালুকনগর থিয়েটারের মধ্য দিয়ে নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন ও সহযাত্রী নাসির উদ্দীন ইউসুফ বাচ্চুকে নিয়ে হাজার বছরের সংস্কৃতি যা বাঙালির হৃদয়ে যুগ যুগে আঁকড়ে আছে তাহা জাগিয়ে তুলতে প্রতিষ্ঠা করেন বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার।

একে একে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে সহযোগী সংগঠন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতে থাকে তার শাখা সমূহ। আমাদের ফরিদগঞ্জ থিয়েটারের যাত্রা ১৯৮৩ সনের শেষে দিকে, প্রতিষ্ঠার শুভ সূচনায় কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে হুমায়ূন কবীর হিমু এবং মোসাদ্দেক মিল্লাত প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সেনেরখিলের তালুকদার নাটক এবং স্থানিয় জারি ও লোকগান দিয়ে মঞ্চ মাতাতে থাকে, তারপর হঠাৎ একদিন চাঁদপুর লক্ষীপুর হয়ে সেলিম আল দীন ওনার নিজ বাড়ি ফেনীর সোনাগাজী সেনেরখিল যাবেন, আমার জন্য একটি মহেন্দ্রক্ষন তিনি ডাকাতিয়া নদী পার হয়ে একদিন আমার বাড়িতে অর্থাৎ ফরিদগঞ্জ থিয়েটারে আমাদের সাথে মিলিত হবে যেই কথা সেই কাজ।

দিনটি সম্ভবত চুরাশি জানুয়ারী, সফর সঙ্গী হিসেবে আমাদের ফরিদগঞ্জের জামাতা দেশ বরেণ্য অভিনেতা প্রয়াণ হুমায়ুন ফরিদী সহ আর দুই জন।

আয়োজন একবারে সীমিত হলেও আজ আমাদের কাছে দিনটি ছিল ফরিদগঞ্জ থিয়েটারের জন্য ঐতিহাসিক পটভূমি রচিত, রাতভর স্থানীয় বয়াতিদের জারিগান উপভোগ করছেন। পরের দিন ওনার সফর সঙ্গী হিসেবে একেবারে তরুণ বয়সে আমি সেনেরখিলে যাই, আজ মনে পড়ে ওনার একভাই ভেড়া জবাই করে আমাদের রাতের আহারের ব্যবস্থা করেন, যা আমি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত ভুলতে পারবো না ।

যাই হোক এবার ফরিদগঞ্জ থিয়েটার নিয়ে কথা নাটক সেনেরখিলের তালুকদার দিয়ে শুরু করে চোর, এখন দুঃসময়, ওরা কদম আলী, বাসন এবং আমার রচিত ক্ষুদ্র নাটক ভুলের মাশুল, শপথ নিয়ে ১৯৮৩-১৯৯৪ ইংরেজি বিভিন্ন উৎসবে এমনকি রাজধানী ঢাকায় মহিলা সমিতি ও গাইড হাউসে দুই বার মঞ্চায়নের সুযোগ হয়েছে ।

বলা চলে তখনকার যারা অভিনয়ের সঙ্গে জড়িত ছিলেন প্রায় দুই চারজন ছাড়া সকলেই পরপারে চলে গেছেন। জীবিত আছেন আমার সহযাত্রী শফিকুর রহমান, আবদুস সালাম, জাকির হোসেন পাটওয়ারী, নবী আলম বাবু, বিল্লাল হোসেন সাগর।

আমার অনুপস্থিতির কারণে ১৯৯৫ থেকে সংগঠনটি আস্তে আস্তে নিস্ক্রিয় হয়ে পড়ে । গত কয়েক বছর ধরে আবার নতুন প্রজন্মদের নিয়ে সামনে চলার উদ্যেগ হাতে নিয়েছি, জানিনা সামনে কি হবে, হ্যা তবে একটি বিশ্বাস যে হেতু এখনো বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার নিয়ে নিরলস প্রচেষ্টায় দিনরাত কাজ করে দেশময় ছুটে চলেছেন, আমাদের সকলের মধ্যমনি নাসির উদ্দীন ইউসুফ বাচ্চু ভাই সভাপতি হিসেবে সেই ভরসায় আবার আগামী পথচলা শুরু করলাম।
১৯, আগস্ট ২০২২ ঢাকা

Leave a Reply

Your email address will not be published.